ঢাকা, শুক্রবার,২৩ আগস্ট ২০১৯

মজা.কম

করমুক্ত কোলাকুলি

শাহাদাত ফাহিম

২৯ জুন ২০১৬,বুধবার, ২০:১৪


প্রিন্ট

বাংলাদেশ কোলাকুলি সঙ্ঘ জানিয়েছে, এবারের ঈদুল ফিতর শুধু শহরেই নয়, পালন করা হবে মফস্বলপর্যায়েও। শুধু তাই নয়, জানানো হয়েছে এবারের ঈদুল ফিতির অজপাড়াগাঁয়েও পালন করা হবে। তা-ও যেমন তেমন আকারে নয়। পালন করা হবে বেশ ধুমধামের সাথে। ইতিমধ্যে এর জন্য যাবতীয় প্রস্তুতি ও গ্রহণ করা হয়েছে। সঙ্ঘের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে এবারের ঈদ অন্য যেকোনো বারের চেয়ে বেশি উৎসাহ এবং ডাবল উদ্দীপনা নিয়ে উদযাপন করা হবে। এর জন্য যা করা দরকার, তার সবই করা হচ্ছে। উদ্দীপনার অভাবে যেন ঈদ উদযাপন করা থেকে বিরত না থাকে সে দিকে কর্র্তৃপক্ষের বিশেষ দৃষ্টি থাকছে। তবে কেউ যেন এই দৃষ্টিকে কুদৃষ্টি মনে না করে সে বিষয়ে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে এক লাখ সদস্যবিশিষ্ট পরামর্শ বৈঠক। বৈঠকে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা প্রত্যেকেই কোলাকুলি সঙ্ঘের দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ। যে কারণে সবাই টুকটাক পরামর্শ প্রদান করেছেন। অনেকে পরামর্শ দিতে গিয়ে লম্বা বক্তৃতা দিয়ে ফেলেছেন। যে কারণে অনেকেরই পরামর্শ গৃহীত হয়নি। গৃহীত সিদ্ধান্তবলির মধ্যে উল্লেখযেগ্য হচ্ছে- যেদিন ঈদ পালন করা হবে, সেদিন এক যোগে সবার পরনে নতুন পোশাক থাকবে। এসব পোশাকের ভাঁজ ওই দিনই প্রথমবারের মতো ভাঙা হবে। নতুন পোশাক পরে এ দিন মহাসমারোহে কোলাকুলি করা হবে। তবে সুখবর হচ্ছে কোলাকুলির ওপর কোনো প্রকার কর ধার্য করা হয়নি। ফলে যত খুশি ততই কোলাকুলি করতে পারবেন ঈদ পালনকারী। তবে এ বিষয়ে আরো পরামর্শ হচ্ছেÑ মোটা ব্যক্তিরা চিকন ব্যক্তিদের সাথে কোলাকুলির ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা বজায় রাখতে বলা হয়েছে। ঈদ সালামির ব্যাপারে যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বৈঠকে। এতে আইন করা হয়েছে একজনের কাছ থেকে একই ব্যক্তি একাধিকবার সালামি আদায় করতে পারবে না। যদি আদায় করা হয় তাহলে তিনি যেন কোলাকুলি সঙ্ঘ বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তবে এ লেখা যে, টাইপ করা কাগজে হতে হবে এমন কোনো ধরাবাধা নেই। তবে সালামি দাতারা যদি ভাংতি না থাকার অজুহাত দেখিয়ে সালামি দেয়ার বেলায় কোনো রকম টালবাহানা করে, সে ক্ষেত্রে তাদের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে সঙ্ঘ। এর অংশ হিসেবে তাদের স্থাবর-অস্থাবর সব সম্পদ ক্রোকসহ নাগরিকত্ব বাতিল করার বিধান রাখা হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর সালামি প্রাপকেরা যেন মিষ্টি বিতরণের কথা বিলকুল ভুলে না যায়, সে বিষয়ে এলাকার বড় ভাইদের খেয়াল রাখার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। 

ঈদ উপলক্ষে ঢঙ্গের ওপর হালকা-পাতলা বিধিনিষেধ আরোপ করা হলে ও প্রেমের ওপর কোনো রকমের লাগামের ব্যবস্থা করা হয়নি। বলা হয়েছে ঢং প্রদর্শনকারিনী অবশ্যই তার পারফরম্যান্স করতে পারবেন যত্রতত্র। তবে তাকে এমন পর্যায়ের ঢং দেখানো থেকে বিরত থাকতে হবে, যা দেখে আশপাশের দু’চারজন ফিট হয়ে যেতে বাধ্য হয়! প্রেমবান্ধব সঙ্ঘ ঈদ উপলক্ষে সর্বপ্রকারের প্রেমকে রেখেছে ভ্যাটমুক্ত। এতে করে পুরনো প্রেমকে যেমন নতুন করে নবায়ন করা যাবে তেমনি নতুনভাবে প্রেম করতে পারবে বাড়তি খরচাবিহীন। এই সুযোগে একজন এক হাজার প্রেম করতে পারছেন বিনা ফিকিরে।
ঈদের দিন শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে প্রেমকর্মীদের বিশেষ ডায়েরি প্রদান করা হবে সম্পূর্ণ ফ্রি। এই ডায়েরিতে প্রেমকর্মীরা শুধু তাদের প্রেম, পরকীয়া, ছ্যাকা ও ডেটিংয়ের হিসাব রাখবেন। সাথে দেয়া হবে ডিজিটাল ক্যালকোলেটর। যেন তারা সহজে প্রেমের হিসাব-নিকাশ করতে পারেন। এ দিন ফুল শিক্ষিত, হাফ শিক্ষিত এবং অশিক্ষিতসহ সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য বিশেষভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেটি এভাবে যে, একে অন্যের সাথে কথা শুরু করার আগেই হাসি হাসি মুখ করে বলে উঠবেনÑ ঈদ মোবারক।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫