ঢাকা, বুধবার,২৩ অক্টোবর ২০১৯

সাঁতার

অলিম্পিকের সুপার হিরো ফেল্পসের অজানা তথ্য

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৪ আগস্ট ২০১৬,রবিবার, ১৭:৪৬


প্রিন্ট

অলিম্পিক ইতিহাসে নিজকে এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন মার্কিন সুপার হিরো সাঁতারু মাইকেল ফেল্পস। ২৩টি স্বর্ণ পদক জয়ের মাধ্যমে ২হাজার বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে অলিম্পিক কিংবদন্তীর আসনটি দখল করে নিয়েছেন তিনি।
ব্রাজিলের রিওতে চলমান অলিম্পিক থেকে ৫টি স্বর্ণ ও একটি রৌপ্য পদক জয় করে ২৮ বছর বয়সী এই সাঁতারু প্রমাণ করেছেন যে অলিম্পিকে তিনি অপ্রতিদ্বন্দ্বী। তবে ফেল্পসের এই সফলতার নেপথ্যে কী রয়েছে? স্বাভাবিকভাবেই জানার আগ্রহ তার অগণিত ভক্তকুলের। এরই আলোকে সাঁতার কিংবদন্তির কিছু দৈনন্দিন জীবন প্রনালী ও খ্যাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে কিছু তথ্য উল্লেখ করা হলো।
প্রতিদিন ৫ থেকে ৬ ঘন্টা শরীরচর্চা করেন ফেল্পস। আর সাঁতার কাটেন সপ্তাহে আনুমানিক ৫০ মাইল পর্যন্ত। তবে তার এই পরিশ্রম করার রশদ যোগাচ্ছে নিয়মিত খ্যাদ্যাভ্যাস। যেখানে একজন মানুষ দৈনিক গড়ে ২৫০০ কিলোক্যালোরির সমপরিমাণ খ্যাদ্য গ্রহণ করতে পারে সেখানে এই জলদানব গ্রহণ করেন ১২ হাজার ৫০০ কিলোক্যালোরি।
সকালের নাস্তা : ( ৩৩৫০ কিলোক্যালোরি)
১. বড় এক পাত্র পোরিজের সঙ্গে ব্লুবেরি : ৫০০ কিলোক্যালোরি
২. তিনটুকরো চিনি মেশানো ফ্রেঞ্চ টোস্ট : ৬৫০ কিলোক্যালোরি
৩. তিনটি বড় চকলেট চিপ প্যানকেক: ৬০০ কিলোক্যালোরি
৪. ৫টি ওমলেট-৬০০ কিলোক্যালোরি
৫. তিনটি গ্রিল্ড চিজ ও ফাইড এগ স্যান্ডুইচ-১০০০ কিলোক্যালোরি
৬. ২ কাপ কফি
দুপুরের খাবার : (২৫০০ কিলোক্যালোরি)
১. ২টি বড় হ্যাম বার্গার ও অতিরিক্ত মেয়োনেজ দিয়ে চিজ স্যান্ডুইচ : ১০০০ কিলোক্যালোরি
২. টমোটো সস দিয়ে এক পাউন্ড পাস্তা : ১৫০০ কিলোক্যালোরি।
রাতের খাবার : (৫৩৪০ কিলোক্যালোরি)
১. ১৬ ইঞ্চি সাইজের একটি পেপরিন পিজা : ৩৮৪০ কিলোক্যালোরি
২. টমোটো সস দিয়ে এক পাউন্ড পাস্তা : ১৫০০ কিলোক্যালোরি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫