ঢাকা, রবিবার,১৭ নভেম্বর ২০১৯

নারী

বইমেলায় নারী লেখক  

রতন খন্দকার

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,সোমবার, ০০:০০


প্রিন্ট

ফেব্রুয়ারি মাস। প্রতি বছরের মতো এবারো জমে উঠেছে লেখক, পাঠক, প্রকাশকের প্রাণের বইমেলা। আগের চেয়ে এ মেলা সম্প্রসারিত হয়েছে বহু গুণ। কি কলেবর কিংবা প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যায়। তার পরও তুলনামূলক বিচারে নারী লেখকদের প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা এখনো কম। এসব নিয়ে লেখা তৈরি করেছেন
রতন খন্দকার
সময়ের আবর্তে দিন দিন নারী লেখকের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। একসময়ে নারী লেখকদের বই প্রকাশের ক্ষেত্রে অনেক ঝড়ঝঞ্ঝা পোহাতে হতো। সেই গণ্ডি থেকে নারী লেখকেরা ধীরে ধীরে বেরিয়ে আসছেন। এ বছর অমর একুশে গ্রন্থমেলার প্রথম দিন থেকেই মেলায় আসতে শুরু করেছে নতুন নতুন বই। এ বছর বইমেলার প্রতিটি প্রকাশনা সংস্থা থেকে নারী লেখকদের একাধিক বই প্রকাশ করা হয়েছে। এসব বইয়ের মধ্যে গল্প, কবিতা ও উপন্যাসের সংখ্যাই বেশি। তবে কোনো কোনো নারী লেখকদের রান্নাবিষয়ক বইসহ ব্যতিক্রমধর্মী কিছু বইও এসেছে। বইমেলায় খ্যাতনামা লেখকের পাশাপাশি অনেক তরুণ ও নবীন নারী লেখকের বই প্রকাশিত হয়েছে। নারী লেখকদের বই বইমেলাকে অনেক বেশি গতিশীল করার ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছে বলেও জানান প্রকাশনী সংস্থাগুলো।
সাহিত্যদেশ থেকে নায়না শাহ্রীন চৌধুরীর উপন্যাস আমার পরাণ যাহা চায় এ বছর বইমেলায় প্রকাশ পেয়েছে। কর্মজীবনে তিনি রাষ্ট্রায়ত্ত একটি জ্বালানি তেল বিপণন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। ছোটবেলা থেকে তিনি সঙ্গীতচর্চা ও লেখালেখির সাথে যুক্ত। তার মোট বই চারটি। আমার পরাণ যাহা চায় উপন্যাসটিতে তৌহিদের সাথে অর্থী নামে একটি মেয়ের বিয়েবিচ্ছেদের পর আরতি নামে আর একটি মেয়ের সাথে তৌহিদের ভালোবাসা সূত্র ধরে উপন্যাসের মূল কাহিনী।
বইটির ব্যাপারে সাহিত্যদেশের প্রকাশক সফিকুল ইসলাম জানান, বই প্রকাশের ক্ষেত্রে নারী-পুরুষের কোনো ভেদাভেদ নেই। গল্পের বিষয়বস্তুর ওপর এখন পাঠকেরা বই কেনেন। এ জন্য আমি বলব, এবারের মেলায় নারী লেখকদের বই তুলনামূলক ভালো বিক্রি হচ্ছে।
পার্ল পাবলিকেশন্স থেকে এসেছে মৌসুমী মৌর গল্পের বই সবকিছু ভণ্ডদের দখলে। জোবায়দা আক্তারের কবিতার বই তোমার জন্য এক পৃথিবী লিখব। শিশুতোষ গল্প পটুর বদলে যাওয়া বইটির লেখক নিশাত সুলতানা। এ প্রকাশনা থেকে নিশাত সুলতানার আর দু’টি বই প্রকাশিত হয়েছে। একটি মিলেমিশে থাকি এবং অন্যটি কাক ও বকের একদিন। তিনটি বই-ই মেলার শুরু থেকেই শিশু-কিশোররা পছন্দ করছে। বিক্রি ভালো হচ্ছে বলে জানান বইটির লেখক নিশাত সুলতানা। নারীদের লেখকদের বই প্রকাশের ক্ষেত্রে নানা সমস্যায় পড়তে হলেও নিশাত সুলতানার ক্ষেত্রে ভিন্ন। তিনি বলেন, পাবলিকেশন্স থেকে শুরু করে পরিবার ও বন্ধুমহল থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। যে কারণে মেলায় বই বিক্রি সন্তোষজনক। পঙ্খিরাজ থেকে এ বছর নিশাত সুলতানার আরো একটি বই বের হয়েছে। বইটির নাম নিপুর রঙিন একদিন।
কথা প্রকাশ এ বছর বেশ কয়েকটি নারী লেখকের বই প্রকাশ করেছে। জেসমিন আক্তারের নষ্ট নীড়, আফসানা বেগমের উপন্যাস বেদনার সন্তান আমরা, রওশন আরার রান্নাবিষয়ক বই আহার বাহার। পারভেজ আক্তারের উপন্যাস অনেকই অন্য রকম। সময় প্রকাশন সেলিনা হোসেনের প্রবন্ধ আপন আলোয় দেখা প্রকাশ করেছে। এ ছাড়া, ফাহমিদা ফারুকের উপন্যাস মৃত্যু, রান্নাবিষয়ক বই রকমারি রান্না বইটির লেখক নুরুন নাহার চৌধুরী।
মুক্তধারা প্রকাশনী থেকে উম্মে মুসলিমার গল্পের বই ধর্ষিতার গোধূলী বেলা প্রকাশিত হয়েছে।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫