ঢাকা, মঙ্গলবার,২৩ এপ্রিল ২০১৯

ইতিহাস-ঐতিহ্য

উগ্র হিন্দুবাদীদের দাবি নাকচ, তাজমহলকে শাহজাহানের তৈরি সমাধিসৌধ হিসেবে স্বীকার

নয়া দিগন্ত অনলাইন

২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ১৪:৩৫


প্রিন্ট
উগ্র হিন্দুবাদীদের দাবি নাকচ, তাজমহলকে শাহজাহানের তৈরি সমাধিসৌধ হিসেবে স্বীকার

উগ্র হিন্দুবাদীদের দাবি নাকচ, তাজমহলকে শাহজাহানের তৈরি সমাধিসৌধ হিসেবে স্বীকার

বেশ কিছুদিন ধরেই কট্টর হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠীগুলো নতুন দাবি তুলেছে। তাদের দাবি, বিশ্ববন্দিত স্থাপত্য তাজমহল আসলে ছিল শিবমন্দির। এই দাবিকে সমর্থন করেছিলেন কয়েকজন বিজেপি নেতাও। কিন্তু ভারতের পুরাতাত্ত্বিক সংস্থা আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (এএসআই) আদালতে হলফনামা দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে, তাজমহল আসলে মোগল সম্রাট শাহজাহান ও তার পত্নী মমতাজ বেগমের সমাধি সৌধ।

আগ্রার আদালতে অ্যাডভোকেট রাজেশ কুলশ্রেষ্ঠর দায়ের করা মামলায় দায়ের করা হলফনামায় এএসআইয়ের আইনজীবী অঞ্জনি শর্মা বলেছেন, পরলোকগত স্ত্রী মুমতাজ বেগমের স্মৃতিরক্ষায় তাজমহল নির্মাণ করেছিলেন শাহজাহান।

এএসআই-এর আইনজীবী আরো বলেছেন, তাজমহলকে শিবমন্দির ‘তেজোমহল’ দাবি করে যে সব ‘তথ্যপ্রমাণ’ পেশ করা হয়েছে সেগুলো ‘মনগড়া-কাল্পনিক’।
এএসআই-এর আইনজীবী আরো বলেছেন, তাজমহলের কোন অংশ পর্যটকদের সঙ্গে খোলা থাকবে, কোন অংশ বন্ধ থাকবে, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তাই এই বিষয়টির আর পর্যালোচনার প্রয়োজন নেই।

এএসআই-এর এক কর্মকর্তা বলেছেন, পুরো বিতর্কটি দানা বেঁধেছিল স্বঘোষিত ঐতিহাসিক পিএন ওকের লেখা একটি গ্রন্থ ঘিরে। ওই গ্রন্থটিতে তাজমহল আসলে শিবমন্দির ছিল বলে দাবি করা হয়।
গ্রন্থটি প্রকাশের পর রাজনৈতিক নেতা ও মন্ত্রীদের বিবৃতিতে তাজমহল-সংক্রান্ত বিতর্ক আরো উস্কে দেয়। এমনকি, তাজমহলকে মন্দির হিসেবে মেনে তেজোমহল ঘোষণা করার দাবি জানিয়ে আগ্রা কোর্টে লখনউয়ের প্রায় ছয়জন আইনজীবী মামলা দায়ের করেন। প্রকৃত ঘটনা যাতে প্রকাশ্যে আসে সেজন্য তাজমহলের বন্ধ থাকা অংশগুলো খোলারও আর্জি জানানো হয় আদালতে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫