ঢাকা, সোমবার,১৮ নভেম্বর ২০১৯

সংগঠন

ফেব্রুয়ারিতে দুর্ঘটনায় দিনে নিহত ১৫

নিজস্ব প্রতিবেদক

০২ মার্চ ২০১৮,শুক্রবার, ১৪:২০


প্রিন্ট

ফেব্রুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় দৈনিক গড়ে ১৫ জন নিহত এবং ৩৬ জন আহত হয়েছেন। এক মাসে প্রতিদিন দুর্ঘটনা ঘটেছে গড়ে ১৩টি। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে রেল দুর্ঘটনায় ২২ জন ও নৌ দুর্ঘটনায় সাতজনের প্রাণহানি ঘটেছে। বেসরকারি সংগঠন নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির (এনসিপিএসআরআর) নিয়মিত মাসিক জরিপ ও পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।
আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সংগঠনটি তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ২২টি বাংলা ও ইংরেজি জাতীয় দৈনিক, ১০টি আঞ্চলিক সংবাদপত্র এবং আটটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও সংবাদ সংস্থার তথ্যের ভিত্তিতে এই পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মাসে সারা দেশে ৩৭৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৩ নারী ও ৪৮ শিশুসহ ৪১৩ জন নিহত এবং ৪৬ নারী ও ১৯ শিশুসহ ৯৯৫ জন আহত হয়েছেন। ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন সড়ক, মহাসড়ক, জাতীয় সড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে এসব প্রাণঘাতি দুর্ঘটনা ঘটে।
একই সময়ে রেলপথে ৩১টি দুর্ঘটনায় পাঁচ নারীসহ ২২ জন নিহত এবং এক নারীসহ ৮০ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে নৌপথে ছয়টি দুর্ঘটনায় এক নারী ও তিন শিশুসহ সাতজনের প্রাণহানি ঘটেছে। এসব দুর্ঘটনায় আরো সাতজন আহত হয়েছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।
জাতীয় কমিটির পর্যবেক্ষণে বলা হয়, ফেব্রুয়ারিতে সংঘটিত প্রাণঘাতি সড়ক দুর্ঘটনাগুলোর অধিকাংশই ঘটেছে বাস ও ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের ভারি যানবাহনের চালকদের অসতর্কতা ও খামখেয়ালিপনার কারণে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোর যথাযথ নজরদারির অভাব রয়েছে। এছাড়া সড়ক ও মহাসড়কে ক্ষুদ্র যানবাহনের সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি, সকল টার্মিনালসহ বিভিন্ন পর্যায়ে চাঁদাবাজি ও শ্রমিক অসন্তোষসহ সড়ক পরিবহন খাতে বিরাজমান বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিও দুর্ঘটনা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ বলে পর্যবেক্ষণে উল্লেখ করা হয়।
এছাড়া অনেক স্থানে রেলক্রসিংগুলোতে যথাযথ তদারকি ও নিরাপত্তার ঘাটতি রয়েছে উল্লেখ করে পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে বিভিন্ন রেলপথে দুর্ঘটনার জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও দায়িত্বহীনতাকে দায়ী করা হয়। একইভাবে নৌনিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে নিয়ন্ত্রক সংস্থা নৌ পরিবহন অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) গৃহিত পদক্ষেপসমূহ পর্যাপ্ত নয় বলে জাতীয় কমিটির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫