ঢাকা, রবিবার,২১ এপ্রিল ২০১৯

শিক্ষা

শর্ত পূরণ না করা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী

বাসস

১১ মার্চ ২০১৮,রবিবার, ১৫:০৮


প্রিন্ট

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, যে সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সরকারের নীতিমালা অনুসরণ করছে না তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তিনি বলেন, ‘কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও ন্যূনতম শর্ত পূরণ করতে পারেনি। এভাবে তারা বেশি দিন চলতে পারবেন না। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
শিক্ষামন্ত্রী রোববার রাজধানীর ফার্মগেটে অবস্থিত কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে সেন্ট্রাল উইমেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে আচার্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, সেন্ট্রাল উইমেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. পারভীন হাসান, বিশ্বদ্যিালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারপার্সন কাজী জাহেদুল হাসান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মালেকা বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
সমাবর্তন বক্তা ছিলেন বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) সম্মানীত ফেলো ড. রওনক জাহান।
নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষার প্রত্যাশিত মান নিশ্চিতকরণে ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিশ্বমানে উন্নীত করতে সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে। এজন্য এ খাতে তদারকিও জোরদার করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার নারী ও তাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছে। কর্মক্ষেত্রে নারী বিভিন্ন প্রতিকূলতা অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছে। প্রচলিত শিক্ষাকার্যক্রমে সংস্কার হলে আরও উন্নয়ন সম্ভব। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নারী উন্নয়নে লক্ষে কাজ করেছেন। নারীর অর্থনৈতিক স্বাধীনতা নিশ্চিত হলে তারা সমাজে আর পিছিয়ে থাকবেন না, এজন্য আমাদেরকে সমতা নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি বলেন, দারিদ্র দূরীকরণ এখনও আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ, ততদিন পর্যন্ত আমাদের দেশ উন্নত হবে না, যতদিন না আমরা প্রকৃত শিক্ষিত নাগরিক গড়ে তুলতে না পারবো। পর্যাপ্ত জ্ঞান ও প্রযুক্তিতে দক্ষ, শিক্ষিত মানব সম্পদ গড়ে তুলতে না পারলে দারিদ্র দূরীকরণ সম্ভব হবে না।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫