ঢাকা, মঙ্গলবার,২৩ জুলাই ২০১৯

খেলা

দেশকে দ্বিতীয় রৌপ্য এনে দিলেন শাকিল

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১১ এপ্রিল ২০১৮,বুধবার, ২৩:৩১ | আপডেট: ১১ এপ্রিল ২০১৮,বুধবার, ২৩:৩৪


প্রিন্ট
দেশকে দ্বিতীয় রৌপ্য এনে দিলেন শাকিল

দেশকে দ্বিতীয় রৌপ্য এনে দিলেন শাকিল

বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি পদক জয়ের সম্ভাবনা শুটিংয়ে। এ জন্য এবার ১২ জনের সবচেয়ে বড় দল পাঠানো হয় গোল্ডকোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে। শেষ পর্যন্ত শুটাররাই মুখ উজ্জ্বল করলেন দেশের। তা একটি নয়, দু’টি পদক এনে দিলেন তারা। ৮ এপ্রিল অস্ট্রেলিয়ার মাটি থেকে প্রথম রৌপ্য এনে দেন আবদুল্লাহ হেল বাকী। কাল তাকে অনুসরণ করে রৌপ্য জিতলেন শাকিল আহমেদ।

৫০ মিটার পিস্তলে ভারতের ওম মিথারভালকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থান দখল করেন গত এসএ গেমসে এই ইভেন্টে স্বর্ণজয়ী শুটার। শাকিলের স্কোর ছিল ২২০.৫। এই ইভেন্টে অস্ট্রেলিয়ার ড্যানিয়েল রিপাচোলি ¯¦র্ণ পান ২২৭.২ স্কোর করে। ওম মিথারভাল ব্রোঞ্জ জয় করেন ২০১.১ স্কোর করে। বাকী পদক জিতেছিলেন ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে। অবশ্য এবার ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ব্যর্থ হয়েছিলেন তিনি। ৯ এপ্রিল ফাইনালে উঠেও ষষ্ঠ স্থান নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাকে। এই নিয়ে কমনওয়েলথ গেমসের এক আসরে বাংলাদেশের দু’টি পদক জয়ের ঘটনা দ্বিতীয়বার। ১৯৯০ সালে নিউজিল্যান্ডের অকল্যাল্ড কমনওয়েলথ গেমসে এই পিস্তলে দেশকে স্বর্ণ ও রৌপ্য এনে দিয়েছিলেন আতিকুর রহমান ও আবদুর সাত্তার নিনি। তারা ১০ মিটার এয়ার পিস্তল দলগততে স্বর্ণ জয়ের পর ৫০ মিটার দলগততে ব্রোঞ্জ জয় করেছিলেন। অর্থাৎ ২৭ বছর পর পিস্তলে কমনওয়েলথে পদকের দেখা পেল বাংলাদেশ। এই পদক জয়ের জন্য শাকিলকে বিওএ ৫ লাখ টাকা এবং শ্যুটিং ফেডারেশন ৭ লাখ টাকা পুরস্কার দিবে।


৫০ মিটারই শাকিলের এটিই প্রিয় ইভেন্ট। এই ইভেন্টেই কমনওয়েলথ গেমসে প্রথম পদক পেলেন তিনি। তবে বাকী ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে যেভাবে স্বর্ণের লড়াইয়ে ছিলেন শাকিল কিন্তু কাল তেমন পরিস্থিতির জন্ম দিতে পারেননি। বরং বেশ পিছিয়ে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান প্রতিপক্ষের চেয়ে।

তিনি বাছাইপর্ব থেকে সেরা আটে ওঠেন চতুর্থ হয়ে। স্কোর ছিল ৫৪৫.১০। বাছাইয়ে প্রথম হন ভারতের ওম মিথারভাল। ড্যানিয়েল রিপাচোলি হন তৃতীয়। এরপর ফাইনাল রাউন্ডে পাল্টে গেল হিসাব। বাংলাদেশের অপর শুটার আনোয়ার হোসেন ৫২৮.৭ স্কোর করে ফাইনাল রাউন্ডে উঠতে ব্যর্থ হন। তিনি হয়েছেন ২১ জনের মধ্যে দশম।


আজ মহিলাদের ৫০ মিটার রাইফেল প্রোনে খেলবেন শারমিন শিল্পা ও সুরাইয়া আক্তার।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫