ঢাকা, বুধবার,২০ নভেম্বর ২০১৯

দিগন্ত সাহিত্য

পুনর্পাঠ : রাখাইন টু কুতুপালং

সায়মন স্বপন

০৪ মে ২০১৮,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

পড়ন্ত জীবনের কাছে মানুষ কোনো একদিন শরণার্থী হয়ে পড়েÑ চ্যাপ্টাপেটের
আর্তনাদে। তেল-চিটচিটে ঘুম ভেঙে হয়তো-বা স্বপ্নের কথা কেউ কেউ মনে
রাখতে পারে। অথচ, ঘুমচোখে স্বপ্ন দেখার কোনো পৈতৃক অধিকার ছিল না।
কেবল, পাথরের মার্বেল গুনে গুনে জল জমেছে জলপুকুরে।

রাত পোহাবার আগেই বসতির খুঁটি ছেড়ে ছুটতে হলো সামরিক-ছাড়পত্রে।
সিঁথানে রেখে আসা দুমুঠো স্বপ্ন হারিয়ে কেউ কেউ অপেক্ষায় ছিল নাফ নদীর
কিনারায়। কারো জানা ছিল না, জ্বলন্ত উনুন ফেলে ছুটতে হবে অজানা গন্তব্যে।
কারো জানা ছিল না, আদরের বৌ কিংবা কিশোরীকে ছিঁড়ে খাবে চোখের
সামনেই। সোহাগী স্বামীর মরদেহ নিয়ে কাঁদতে হবে অকালেÑ কারো ছিল না জানা।

ভেসে যাওয়া স্বজনের স্মৃতি নিয়ে গোপন ব্যথায় কাতর কতশত স্বজন, তার
পরিসংখ্যান নেই কোনো দফতরে। কেবল, কান্নামাখা মুখগুলোর ছবি ঝুলে আছে
নাগরিক-জাদুঘরে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫