ঢাকা, সোমবার,১৪ অক্টোবর ২০১৯

বিনোদন সারাদিন

একসঙ্গে প্রথম মিলন-নাদিয়া মিম

অভি মঈনুদ্দীন

১৪ মে ২০১৮,সোমবার, ০০:০০


প্রিন্ট

আগামী ঈদে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচারের জন্য তুষার খান নির্মাণ করেছেন বিশেষ নাটক ‘দু কূলে বসবাস’। এতে প্রথম একসঙ্গে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন ও লাক্স তারকাভিনেত্রী নাদিয়া মিম। এ নাটকে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিশির আহমেদ। নাটকে মিলন অভি চরিত্রে, নাদিয়া মিম শিখা চরিত্রে এবং শিশির আহমেদ দীপ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। শিখা ও দীপের প্রেম থাকে। কিন্তু ঘটনাক্রমে অভির সঙ্গে বিয়ে হয় শিখার। বিয়ের পর আবার শিখার সঙ্গে দীপের ফেসবুকে যোগাযোগ শুরু হয়। কিন্তু একসময় খোঁজ নিয়ে শিখা জানতে পারে অনেক আগেই ক্যান্সারে দীপ মারা যায়। তাহলে ফেসবুকে শিখার সঙ্গে দীপ সেজে কে যোগাযোগ করেছে? এমনই ঘটনা নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘দু কূলে বসবাস’ নাটকটি।
নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে আনিসুর রহমান মিলন বলেন, ‘ ঈদের সময় অনেক নাটক নির্মাণের তাড়াহুড়া থাকে, শিল্পীদের খুব ব্যস্ততা থাকে। যে কারণে খুব মনোযোগ দিয়ে কাজ করাটা কঠিন হয়ে পড়ে। কিন্তু দু কূলে বসবাস নাটকটির চরিত্রটি এতটাই মনস্তÍাত্ত্বিক ছিল যে চরিত্রটি আমাকে বেশ চ্যালেঞ্জ নিয়েই করতে হয়েছে এবং আমি কাজটি করে বেশ তৃপ্ত। নাদিয়া মিমের সঙ্গে এটি আমার প্রথম কাজ ছিল। মিমও তার চরিত্রে বেশ ভালো করেছে।’
নাদিয়া মিম বলেন, ‘শিখা খুব চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে আমি অনেক কষ্ট করেছি। মিলন ভাই গুণী শিল্পী , তিনি আমাকে যথেষ্ট আন্তরিকতা নিয়ে সহযোগিতা করেছেন।’ নির্মাতা তুষার খান জানান, আগামী ঈদে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে নাটকটি প্রচার হবে।
এ দিকে আজ মিলন রাজধানীর অদূরে পুবাইলে চয়নিকা চৌধুরীর নির্দেশনায় ‘বিয়ের শাড়ি’ নাটকের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকবেন। এতে তার বিপরীতে আছেন জাকিয়া বারী মম। মিলন এরই মধ্যে আরিফ নির্দেশিত ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন। অন্য দিকে নাদিয়া মিম অভিনীত দুটি ধারাবাহিক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘কাগজের ফুল’ এবং স্বাধীন ফুয়াদ পরিচালিত ‘চিরকুমারী সংঘ’ দু’টি ভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫