ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২২ আগস্ট ২০১৯

জাতীয়

কোটা নিয়ে আন্দোলনকারীদের আলটিমেটামে ক্ষুব্ধ প্রধানমন্ত্রী

শিগগিরই সিদ্ধান্ত পাবো : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

বিশেষ সংবাদদাতা

১৪ মে ২০১৮,সোমবার, ২২:৫৩


প্রিন্ট
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মডেল তুলে দিচ্ছেন দুই মন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মডেল তুলে দিচ্ছেন দুই মন্ত্রী

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের দফায় দফায় আলটিমেটামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুব্ধ। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক চলাকালে এ বিষয়ে বিরক্তি ও ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কোটা নিয়ে আমিতো আগেই সিদ্ধান্ত দিয়ে দিয়েছি। আমিতো বলেছি কোটা থাকবে না। সব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কিছু সময় লাগে। এরপরও আলটিমেটাম, আন্দোলনের হুমকি দেয়া হচ্ছে, এটা সম্পূর্ণ বাড়াবাড়ি।


বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদের একাধিক সদস্যের সাথে আলাপ করে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিপরিষদ সভায় সভাপতিত্ব করেন। এ আলোচনায় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী অংশ নেন।


বৈঠকের একাধিক সূত্র জানায়, কোটা নিয়ে আন্দোলনকারীদের আলটিমেটামে প্রধানমন্ত্রী ক্ষুব্ধ। আন্দোলনকারীদের অবস্থানে শাহবাগ অচলÑএ প্রসঙ্গ আলোচনায় ওঠার পর প্রধানমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, আমি তো একটা কথা বলেছি, কমিটি কাজ করছে। কেউ বসে নেই, এটা একটা লম্বা প্রক্রিয়া। আমি একটা কথা দিয়েছি, সংশ্লিষ্টরা এ নিয়ে কাজ করছে। আন্দোলনকারীরা বলে, ক্লাস করবে না। না করলে না করবে, এতে তাদেরই ক্ষতি। আমি তো বলেছি হবে।


সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থার সংস্কার চেয়ে যারা আন্দোলন করছেন তাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরাতো বলেছি, আমরা এটা করব। কিন্তু এখনই এটা করতে হবে? এ জন্য তো সময় লাগবে। আমিতো বলেছি কোটাই থাকবে না। এরপরও আলটিমেটাম, আন্দোলনের হুমকি দেয়া হচ্ছে। এটার তো কোনো যুক্তি নেই। কোটার বিষয়টি বাস্তবায়ন করতে সময় লাগবে। তারপরও হুমকি দেয়াটা বাড়াবাড়ি।


আলোচনায় অংশ নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, কোনো কোনো মহল কোটার বিষয় নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এটা দ্রুত করা যায় কি-না সে বিষয়ে একটু ভাবেন। কারণ, এর সমাধানের বিষয়টি তো আপনিই দিয়েছেন।


কোটা নিয়ে হয়তো শিগগিরই সিদ্ধান্ত পাবো : মন্ত্রিপরিষদ সচিব


বৈঠক শেষে সরকারি চাকরিতে কোটা বিষয়ে শিগিগিরই সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন প্রক্রিয়াধীন আছে। কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপনের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ক্যাবিনেট সচিবকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সেই কমিটি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এবং নারী কোটার বিষয়ে একটি সামারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠিয়েছে। তবে আমি এখনো কোনো কাগজপত্র পাইনি। হয়তো কয়েক দিনের মধ্যেই পেয়ে যাবো। অবিলম্বে এই প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।


কোটার বিষয়ে সর্বশেষ অবস্থা জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রিসভা বৈঠকে কোটা নিয়ে আলোচনা হয়নি, তবে কোটার বিষয়টা প্রক্রিয়াধীন আছে, হয়তো কিছু দিনের মধ্যে হয়ে যাবে। আমি যতদূর শুনেছি কোটার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে কমিটি গঠনের সামারি (সারসংক্ষেপ) অলরেডি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে চলে গেছে। হয়তো আমরা শিগগিরই সিদ্ধান্ত পাবো, ইনশাআল্লাহ।


কবে নাগাদ কমিটি গঠন হবেÑ এ বিষয়ে শফিউল আলম বলেন, এখনো আমরা কমিটি গঠনের কোনো প্রজ্ঞাপন পাইনি, হয়তো হয়ে যাবে খুব তাড়াতাড়ি।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি চাকরিতে কোটাপদ্ধতির বিলুপ্তির প্রজ্ঞাপন প্রকাশের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনসহ ধর্মঘট পালন করছেন আন্দোলনকারীরা। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস থেকে মিছিল করে শাহবাগ মোড়ে এসে অবস্থান নিয়েছেন। প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়া পর্যন্ত তারা এখানে অবস্থান করবেন বলে জানান।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫