ঢাকা, শুক্রবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

বিনোদন সারাদিন

জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলেন রুবা

আলমগীর কবির

১৬ মে ২০১৮,বুধবার, ০০:০০


প্রিন্ট

শরীয়তপুরের জাজিরার সন্তান রুবা। রুবা যখন খুব ছোট্ট তখন থেকেই এলাকার মানুষের স্বপ্ন, আশা তাকে নিয়ে, একদিন রুবা এ দেশের একজন বড় সঙ্গীতশিল্পী হবে। সেই স্বপ্ন রুবার বাবা এস এম ওসমান গণি, মা রওনক জাহান আর খালামনি রূপমের। সবার সেই স্বপ্ন পূরণের পথেই ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছেন রুবা। কারণ রুবা ‘জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা ২০১৮’ তে হামদ ও নাত’-এ দেশের আটটি বিভাগ থেকে অংশগ্রহণকারী সব প্রতিযোগীর মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। রুবার এই সাফল্যে জাজিরাবাসী, তার বাবা, মা ও খালামনি দারুণ খুশি। তবে এই সাফল্যে তারা সবাই আনন্দিত হলেও আগামীতে রুবাকে সবাই দেশের বড় একজন সঙ্গীতশিল্পী হিসেবেই দেখতে চায়। ‘জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা ২০১৮’তে গতকাল বিকেলে রাজধানীর দোয়েল চত্বরে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে রুবার হাতে চ্যাম্পিয়নের পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো: আব্দুল হামিদ। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মেহজাবিন রুবা বলেন,‘ ছোট বেলা থেকেই আমার বাবা মায়ের স্বপ্ন আমি যেন একজন সঙ্গীতশিল্পী হতে পারি। বিশেষ করে আমার মা এবং আমার খালামনি রূপম সবসময়ই চাইতেন আমি যেন সঙ্গীতচর্চায় সম্পৃক্ত থাকি। কারণ আমার কণ্ঠ সম্পর্কে তারাই সবচেয়ে বেশি অবগত। আগামী দিনের স্বপ্ন পূরণের একটি ধাপ অতিক্রম করেছি হামদ ও নাত’-এ চ্যাম্পিয়ন হতে পেরে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আমি এ দেশের একজন সঙ্গীতশিল্পী হয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে অবদান রাখতে পারি।’ রুবা বর্তমানে জাজিরা মোহর আলী মডেল উচ্চবিদ্যালয়ে নবম শ্রেণীতে পড়ছেন। জাজিরা শিল্পকলা একাডেমির মিজান এবং সেখানে ঢাকা থেকে যাওয়া শিক্ষক অপূর্ব কুমারের কাছে উচ্চাঙ্গসঙ্গীতে তালিম নিচ্ছেন নিয়মিত। এর আগে রুবা জেলাপর্যায়ে মৌসুমী প্রতিযোগিতায় নজরুল সঙ্গীতে এবং শিশু-কিশোর প্রতিযোগিতায় উচ্চাঙ্গসঙ্গীতে প্রথম স্থান অধিকার করেন। সেরাকণ্ঠ ২০১৭’তে রুবা সেকেন্ড রাউন্ড পর্যন্ত অংশগ্রহণ করতে পেরেছিলেন। সে সময় তিনি সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া ‘শতজনমের স্বপ্ন তুমি আমার জীবনে এলে’ গানটি গেয়ে বিচারকদের মুগ্ধ করেছিলেন। রুবা পিএসসি এবং জেএসসিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছেন। ছাত্রী হিসেবে মেধাবী হলেও স্বপ্ন তার নিজেকে একজন সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার।

 

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫