ঢাকা, রবিবার,১৬ জুন ২০১৯

বিনোদন সারাদিন

‘দেবদাস’-এর অনুপ্রেরণায় অপূর্ব মম ও মেহজাবিনের জলসাঘর

অভি মঈনুদ্দীন

১৬ মে ২০১৮,বুধবার, ০০:০০


প্রিন্ট

বাংলাদেশে বিভিন্ন সময়ে শরৎচন্দ্রের ‘দেবদাস’ নিয়ে চলচ্চিত্র এবং বেটা ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছিল। এ দেশে ‘দেবদাস’ নামক দুটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলেন প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলাম এবং বেটা ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলেন শহিদুল ইসলাম মিন্টু। দুটি চলচ্চিত্রে এবং টেলিফিল্মে দেবদাস, পার্বতী ও চন্দ্রমুখী চরিত্রে বিভিন্ন সময়ে অভিনয় করেছিলেন বুলবুল আহমেদ, কবরী ও আনোয়ারা, শাকিব খান, অপু বিশ্বাস ও মৌসুমী এবং মাহফুজ আহমেদ, তারিন ও তানিয়া আহমেদ। এবার দেবদাস’ গল্পে অনুপ্রাণিত হয়ে নাট্যকার ও নির্মাতা জাকারিয়া শৌখিন নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ‘জলসাঘর’ নামের একটি টেলিফিল্ম। এতে দেবদাস, পার্বতী ও চন্দ্রমুখী চরিত্রে অভিনয় করবেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, মেহজাবিন চৌধুরী ও জাকিয়া বারী মম। তবে জাকারিয়া শৌখিন জানান চরিত্র ঠিকই থাকবে কিন্তু নাম পরিবর্তন করা হবে। জাকারিয়া শৌখিন বলেন,‘ শরৎচন্দ্রের দেবদাস-এ অনুপ্রাণিত হয়ে আমি জলসাঘরের কাহিনী রচনা করেছি বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে। যে কারণে চরিত্রের নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। দর্শকের কাছে অনুরোধ থাকবে কোনোভাবেই যেন আমার জলসাঘরকে দেবদাসের সাথে যেন না মিলিয়ে ফেলেন। শরৎচন্দ্রের দেবদাসের সাথে আমার জলসাঘরকে মেলানো ঠিক হবে না। তবে এটাও সত্য যে দেবদাস’-এ অনুপ্রাণিত হয়েই আমি এটি রচনা করেছি। আমার ভাবনায় যেসব শিল্পী এসেছেন তাদের নিয়েই আমি কাজ করতে যাচ্ছি।’ কেন নামকরণ জলসাঘর দিয়েছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে শৌখিন বলেন,‘ দেবদাসের জীবন হচ্ছে জলসাঘরের মতোই। ক্ষণিকের আনন্দ , পরক্ষণেই আবার বেদনা ভর করে তার জীবনে। তাই তার জীবনকে প্রাধান্য দিয়ে নামকরণ করেছি জলসাঘর। শৌখিন জানান, শিগগরিই ‘জলসাঘর’-এর শুটিং হবে। অপূর্ব, মম এবং মেহজাবিন ধাপে ধাপে এই টেলিফিল্মের কাজে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন নির্মাতা। ‘জলসাঘর’ নির্মিত হবে স্যাটেলাইট চ্যানেলে বাংলা ভিশনের নিজস্ব প্রযোজনায়। আগামী ঈদে বাংলা ভিশনেই ‘জলসাঘর’ প্রচার হবে।
ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫