ঢাকা, মঙ্গলবার,১৮ জুন ২০১৯

চট্টলা সংবাদ

আল্লাহর ঘর মসজিদ নির্মাণ ও হেফাজতে রাখা ঈমানী দায়িত্ব : বায়তুশ শরফের পীর

চট্টগ্রাম ব্যুরো

১৭ মে ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

বায়তুশ শরফের পীর ছাহেব বাহরুল উলুম মাওলানা মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন বলেছেন, আল্লাহর ঘর নির্মাণ ও হেফাজত করা মুসলমানের ঈমানী দায়িত্ব। হাদিসের প্রসঙ্গ দিয়ে তিনি বলেন, রাসূল সা: এরশাদ করেছেনÑ যে ব্যক্তি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য একটি মসজিদ নির্মাণ করেন, আল্লাহ তায়ালা তার জন্য জান্নাতে একটি ঘর নির্মাণ করবেন। তিনি আরো বলেনÑ শাবান মাস হলো রমজানের প্রস্তুতির মাস। মহিমাময় বরকতপূর্ণ মাস হলো মাহে রমজান। রমজান মাস থেকে পুরোপুরি ফায়দা হাসিলের জন্যই শাবান মাসে শরীর ও মনকে পূর্ণ প্রস্তুত করতে হয়। হজরত আয়েশা ছিদ্দিকা (রহ:) থেকে বর্ণিত, রাসূল সা: এরশাদ করেছেন- যে ব্যক্তি শাবান মাসে তিনটি রোজা রাখল তাকে আল্লাহ পাক কেয়ামতের দিন বেহেশতি উটের ওপর আরোহী করাবেন।
তিনি গত ১১ মে নগরীর হাজীরপুল এলাকায় বায়তুন নুর জামে মসজিদের পুনর্নির্মাণ, শুভ উদ্বোধন, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
বায়তুন নুর জামে মসজিদের সভাপতি ও মোতায়াল্লি বিশিষ্ট শিল্পপতি মুহাম্মদ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল ইসলামিয়া চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ সুলতান জওক নদভী।
শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেনÑ হাজীরপুল বায়তুন নুর জামে মসজিদ খতিব হজরত মাওলানা মীম জহিরুল ইসলাম, মুহাম্মদ আবু তাহের, কাউন্সিলর মুহাম্মদ সাইফুদ্দীন খালেদ সাইফু, সিআইএমসি ট্রাস্ট চট্টগ্রামের ভাইস চেয়ারম্যান ডা: মুহাম্মদ রফিক, মুহাম্মদ বাহার উল্লাহ, মাওলানা কাজী শিহাব উদ্দীন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন-চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ৩ নম্বর পাঁচলাইশ ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ মুহাম্মদ কফিল উদ্দিন খান, শাহজাদা মাওলানা সালাহ উদ্দিন বেলাল, মুহাম্মদ ইলিয়াছ মিয়া ঝন্টু, মাওলানা মুহাম্মদ এহছানুল হক মিলন, মাওলানা মুহাম্মদ শাহজাহান, মোহাম্মদ লিটন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন- ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের রাউজান শাখার ম্যানেজার মুহাম্মদ শাহজাহান।

 

 

 

অন্যান্য সংবাদ

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫