ঢাকা, শুক্রবার,১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

জবস অ্যান্ড ক্যারিয়ার

নীতিমালার পর তেলের দাম পুনর্নির্ধারণ : মুহিত

নয়া দিগন্ত অনলাইন

০৩ জানুয়ারি ২০১৬,রবিবার, ২০:২০


প্রিন্ট

দেশে বিনিয়োগ বাড়াতে জ্বালানি তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারের সাথে সমন্বয়ের পক্ষে অর্থনীতিবিদদের মত এলেও এখনই কোনো আশা দিতে পারছেন না অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেছেন, জ্বালানি তেলের দাম নিয়ে একটি নীতিমালা করার পরই সরকার দাম পুনর্নির্ধারণ করবে।

আজ রোববার মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এমসিসিআই) প্রতিনিধিদের সাথে এক বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান। তবে কবে নাগাদ তা হতে পারে- সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি মুহিত।

এমসিসিআই সভাপতি সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর বৈঠকে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর বিষয়ে অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। জবাবে অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে ‘চিন্তা-ভাবনা’ করার কথা জানান।

বৈঠকের পর সাংবাদিকরা এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে মুহিত বলেন, আপাতত বিষয়টি ‘বিবেচনা করা হচ্ছে না’- এটাই সরকারের ‘স্টেটমেন্ট’। (জ্বালানি তেলের দাম বিষয়ে) আমাদের সুস্পষ্ট কোনো পলিসি নাই। অন্তত সেটা করার চেষ্টা আমরা করছি। সেটা হলে পরে আমরা আশা করছি, কিছু রিভিশন হবে।

এজন্য কত সময় লাগবে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, সময় বলতে পারব না। কেননা এর সাথে সর্বোচ্চ পর্যায় যুক্ত।

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমার পরও দেশের বাজারে না কমানোয় বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন ইতোমধ্যে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পেরেছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমি একটা স্টেটমেন্ট নিয়েছি, তাতে কম-বেশি লস কাভার করেছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বলানি তেলের দাম কমছেই। কমতে কমতে সেই দাম ব্যারেল প্রতি ৩৮ ডলারে নেমে এসেছে।

সেই পরিপ্রেক্ষেতে দেশে গ্রাহক পর্যায়ে দাম কমানোর কথা উঠলে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়- বিপিসি আগে অনেক লোকসান দিয়েছে। তা সমন্বয় হোক।