Naya Diganta

ফলের গন্ধে আতঙ্কে বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়লো শিক্ষক শিক্ষার্থীরা

বিবিসি বাংলা

৩০ এপ্রিল ২০১৮,সোমবার, ১০:১১


দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াতে জনপ্রিয় এই ডোরিয়ান ফল

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াতে জনপ্রিয় এই ডোরিয়ান ফল

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০০-র বেশি শিক্ষার্থী এবং শিক্ষককে সরিয়ে নেয়া হয়েছে রাসায়নিক গ্যাস আতঙ্কে।

এর কারণ তীব্র এক গন্ধ।

যে প্রচন্ড গন্ধের কারণে গ্যাস বলে সন্দেহ করা হয়োছল, কিন্তু পরে জানা গেল সেটি আসলে ডোরিয়ান ফলের থেকে সৃষ্ট গন্ধ।

ডোরিয়ান ফলটি হচ্ছে একধরনেসর গ্রীষ্মকালীন ফল যার তীব্র এবং অদ্ভূত গন্ধ রয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বলছেন, শীতিাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র-ব্যবস্থার মাধ্যমে এই গন্ধ পুরো ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়ে।

পরে মেলবোর্নের মেট্রোপলিটন ফায়ার ব্রিগেড এক বিবৃতিতে জানিয়েছে ওই বিশ্ববিদ্যালয় ভবনটি এখন আবার খুলে দেয়া হয়েছে।

প্রথমে তীব্র গন্ধ পাওয়ার পর ছাত্র-ছাত্রী এবং কর্মকর্তারা লাইব্রেরি ভবন থেকে গ্যাস বের হচ্ছে বলে ধারণা করেন।

এর পরপরই স্থানীয় পুলিশ বাহিনী এসে তাদের নিরাপদে সরিয়ে নেয়।

ফায়ার সার্ভিস বলছে, ভবনটির ভেতরে বিপদজনক রাসায়নিক আছে এই বিবেচনায় গন্ধের উৎস খুজে বের করতে তারা প্রাথমিক একটি তদন্ত চালিয়েছে।

কর্মকর্তারা একে বর্ণনা করছেন 'ব্যাপক তল্লাশি অভিযান" হিসেবে। পরে তারা আবিষ্কার করেন যে, গন্ধটি কোনও রাসায়নিক গ্যাসের থেকে নয়, বরং তা আসছে ডোরিয়ান ফল থেকে।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াতে ডোরিয়ান একধরনের মিষ্টি এবং দামি ফল হিসেবে পরিচিত, কিন্তু এর গন্ধ এতটাই তীব্র যে তার সাথে অভ্যস্থ হতে সময় লাগতে পারে যে কারো।

 

ডোরিয়ান কী?

•এটি একধরনের গ্রীষ্মকালীন ফল, আকার অনেকটা নারকেলের মতো।

•এর বাইরের আবরণ সবুজ এবং অসমান-অনেকটা কাটার মতো উঁচু। তবে এ্রর ভেতরে মিষ্টি নরম অংশ রয়েছে।

•কড়া গন্ধ সত্ত্বেও অনেকের কাছে এটি সুস্বাদু একটি ফল হিসেবে প্রিয়।

•এই ফলটি দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার স্থানীয় একটি ফল এবং ওই অঞ্চলে সাধারণত হোটেল কক্ষ এবং পরিবহনে এটি বহন করা নিষেধ।

 

 

Logo

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,    
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫