বিশ্বসাহিত্যের টুকিটাকি

মতিন মাহমুদ

ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত জর্দানি লেখক ইব্রাহিম নাসরাল্লাহ ২০১৮ সালের ‘ইন্টারনাশনাল প্রাইজ ফর অ্যারাবিক ফিকশন’ পুরস্কার জিতে নিয়েছেন। এ পুরস্কারকে আরবের বুকার পুরস্কার বলে বর্ণনা করা হয়। লন্ডনের বুকার প্রাইজ ফাউন্ডেশনের সহায়তায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির সংস্কৃতি ও পর্যটন বিভাগ এ পুরস্কারের আয়োজন করে থাকে। গত মঙ্গলবার আবুধাবিতে এক অনুষ্ঠানে ১১তম ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ ফর অ্যারাবিক ফিকশন (আইপিএএফ) পুরস্কারে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। ইব্রাহিম নাসরাল্লাহ তাঁর লেখা উপন্যাস ‘দি সেকেন্ড ওয়ার অফ ডি ডগ’-এর জন্য এ পুরস্কার জয় করেন। এ পুরস্কার বাবদ তিনি ৫০ হাজার ডলার পাচ্ছেন। শর্ট লিস্টভুক্ত ছয়টি উপন্যাসের মধ্য থেকে বিচারকমণ্ডলী নাসরাল্লাহর উপন্যাসটিকে বেছে নেন। অন্য পাঁচজন শর্ট লিস্টভুক্ত লেখকও ১০ হাজার ডলার করে পাবেন। তারা হলেনÑ আমির তাগ আল-সার, আজিজ মোহাম্মদ, শাহাদ আল-রাভি, ওয়ালিদ শুরাফা ও দিমা ওয়ান্নুস। গত বছর ‘এ স্মল ডেথ’ উপন্যাসের জন্য এ পুরস্কার জিতেছিলেন মোহাম্মদ হাসান আলওয়ান। আবুধাবি আন্তর্জাতিক বইমেলা চলাকালে নাসরাল্লাহর হাতে এ পুরস্কার তুলে দেয়া হবে। ২৫ এপ্রিল এ বই মেলা শুরু হয়েছে। নাসরাল্লাহর জন্ম ১৯৫৪ সালে জর্দানের আম্মানে। তার ফিলিস্তিনি মা-বাবা ১৯৪৮ সালে নিজ বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ হওয়ার পর সেখানে আশ্রয় নেন। তার শৈশব কেটেছে আম্মানের একটি উদ্বাস্তুশিবিরে। আর কর্মজীবন শুরু করেন সৌদি আরবে একজন শিক্ষক হিসেবে। পরে আম্মানে ফিরে সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেন। সেকেন্ড ওয়ার অব দি ডগ উপন্যাসে মানবতার বিপর্যয় ও দেশহীন একজন মানুষের ক্রমাগত বদলে যাওয়ার চিত্র বিধৃত। এ পর্যন্ত তাঁর চারটি উপন্যাস ও একটি কাব্যগ্রন্থ ইংরেজিতে অনূদিত হয়েছে। এর মধ্যে দু’টি উপন্যাস আগেও আরব বুকারের শর্ট লিস্টে ছিল। হ

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.