ঢাকা, সোমবার,২৫ মে ২০২০

শিক্ষা

মানববন্ধনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা

প্রজ্ঞাপন জারি না হলে রোববার থেকে ফের আন্দোলন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

০৯ মে ২০১৮,বুধবার, ১৯:২৯ | আপডেট: ০৯ মে ২০১৮,বুধবার, ১৯:৪২


প্রিন্ট
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মানববন্ধন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মানববন্ধন

কোটা বাতিল সংক্রান্ত সংসদে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বুধবারের মধ্যে প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করার দাবি জানিয়েছে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলকারী শিক্ষার্থীরা। তবে প্রজ্ঞাপন জারি না হলে রোববার থেকে ফের ছাত্রসমাজ আন্দোলনে নামবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা।

বুধবার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ ‘আর নয় কালক্ষেপণ, দ্রুত চাই প্রজ্ঞাপন’ শীর্ষক মানববন্ধন থেকে এ ঘোষণা দেন পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নূর।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল দেশব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোতে একযোগে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। কেন্দ্রীয়ভাবে এ কর্মসূচি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এদিন বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এসে জড়ো হয় কোটা সংস্কারপ্রত্যাশী আন্দোলনকারীরা। বেলা সাড়ে ১১টায় সেখান থেকে মিছিলযোগে তারা টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এসে সমবেত হয়। রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে আন্দোলনকারীরা সারিবদ্ধভাবে রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে তাদের শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু করে।

সহস্রাধিক শিক্ষার্থী এ মানববন্ধনে অংশ নেয়। মানববন্ধনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা কোটা বাতিলের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। তারা সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোটা বাতিলের ঘোষণা দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করার দাবি জানান। প্রজ্ঞাপন জারি নিয়ে কোনো টালবাহানা হলে ছাত্রসমাজ তা মেনে নেবে না বলেও জানান তারা।
মানববন্ধনে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী কোটা বাতিলের ঘোষণা দেয়ার পর ২৭ দিন অতিবাহিত হয়ে গেছে। অথচ এখনো প্রজ্ঞাপন জারি হয়নি। এ নিয়ে সারাদেশের ছাত্রসমাজ ক্ষুব্ধ। ছাত্রসমাজ সবসময় আলোচনার পথ খোলা রেখেছিলো। সরকারের পক্ষ থেকে ছাত্রসমাজের প্রতিনিধি হিসেবে আমাদেরকে যতবার ডাকা হয়েছিলো আমরা গিয়েছি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর শিক্ষার্থীরা আন্দোলন বন্ধ করে পড়ার টেবিলে ফিরে গেছে। তাদেরকে আবার রাজপথে নামতে বাধ্য করবেন না।

আন্দোলনকারীদের বিভিন্নভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ছাত্রসমাজকে কোনভাবে হয়রানি করবেন না। ছাত্রসমাজ যদি ক্ষেপে যায়, যেকোন অশুভ শক্তিকে দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিবে।

যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ছাত্রসমাজকে নিয়ে বিভিন্ন ধরণের নাটক হচ্ছে। ছাত্রসমাজ কোন নাটক মেনে নেবে না। তারা ঐক্যবদ্ধ আছে ঐক্যবদ্ধ থাকবে। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন ও যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেন। বেলা সাড়ে ১২টায় শিক্ষার্থীদের এ মানববন্ধন শেষ হয়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫