ঢাকা, সোমবার,০৬ এপ্রিল ২০২০

উপমহাদেশ

ভারতীয় সেনাবাহিনীর হুঙ্কার

হিন্দুস্তান টাইমস

১১ মে ২০১৮,শুক্রবার, ০৮:১৮


প্রিন্ট
কাশ্মির কখনো স্বাধীন হবে না : ভারতীয় সেনাপ্রধান

কাশ্মির কখনো স্বাধীন হবে না : ভারতীয় সেনাপ্রধান

ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত কাশ্মিরি তরুণদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, স্বাধীনতার স্বপ্ন কখনো পূরণ হবে না। এক সাাৎকারে জেনারেল রাওয়াত এ কথা বলেন। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, কাশ্মিরে স্বাধীনতাকামীদের বিরুদ্ধে ভারত সরকারের পদপে অব্যাহত থাকবে।


জেনারেল রাওয়াত বলেন, কিছু মানুষ স্বাধীনতার নাম করে তরুণদের প্রতারিত করছেন। কাশ্মিরি তরুণদের অস্ত্র তুলে নেয়া প্রসঙ্গে সেনাপ্রধান বলেন, ‘বন্দুক হাতে তুলে নেয়া নিরীহ যুবকদের স্বাধীনতার নামে যারা মিথ্যা স্বপ্ন দেখাচ্ছেন তাদের বলতে চাই- এই রাস্তায় কিছুই পাওয়া যাবে না। আমি তরুণদের বলতে চাই এ ধরনের লোকেরা আপনাদের উসকানি দিচ্ছে। কাশ্মিরি তরুণদের বলছি স্বাধীনতা সম্ভব নয়, এটা হওয়ার নয়। অন্যদের উসকানিতে ভুল পথে যাবেন না।’

জেনারেল রাওয়াত হুঁশিয়ারির সুরে বলেন, ‘যারা স্বাধীনতার দাবি করছেন তাদের বিরুদ্ধে আমাদের পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে। যারা স্বাধীনতা চাচ্ছেন তারা ভালোভাবে জেনে নিন, এটা কখনোই হবে না।’ তিনি বলেন, ‘আমি শুধু লোকদের এটা বলতে চাই যে, আপনারা সেনাবাহিনীর সাথে লড়তে পারবেন না। সেনাবাহিনীর সাথে লড়াই করে আপনারা কখনো জয়ী হতে পারবেন না।’
জেনারেল রাওয়াত কাশ্মিরে সংঘর্ষ প্রসঙ্গে বলেন, ‘মৃত্যুতে আমরা খুশি নই। কাশ্মিরিদের বলতে চাই, আমরা কাউকে মেরে ফেলার জন্য খুশি নই। আপনারা সেনাবাহিনীর সাথে সংঘর্ষে জড়ালে সেনাবাহিনীও পাল্টা জবাব দেবে। কাশ্মিরিদের বুঝতে হবে নিরাপত্তা বাহিনী এত নিষ্ঠুর নয়। আমাদের সেনারা বড় উসকানি সত্ত্বেও কোনো বেসামরিক লোকজনদের হতাহত এড়াতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায়। তরুণদের ােভ আছে জানি কিন্তু নিরাপত্তা বাহিনীর ওপরে পাথর নিপে করা কোনো পথ নয়।’

এদিকে জম্মু-কাশ্মিরের নিরাপত্তা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বুধবার সর্বদলীয় বৈঠক শেষে সব রাজনৈতিক দলের প থেকে রাজ্যে শান্তি বহাল করতে একতরফা যুদ্ধবিরতির পদপে নেয়ার আহ্বান জানানো হয়। মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি বলেন, আমরা সবাই এ বিষয়ে একমত হয়েছি, আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানাবো যে, সীমান্তে যুদ্ধবিরতির জন্য নিজেদের প থেকে পদপে নেয়া হোক। ২০০০ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ি এরকম করেছিলেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫