জনতা ব্যাংকের ১১তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

জনতা ব্যাংক লিমিটেডের ১১তম বার্ষিক সাধারণ সভা গত সোমবার ব্যাংকের চেয়ারম্যান লুনা সামসুদ্দোহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের বোর্ডরুমে অনুষ্ঠিত সভায় সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো: ফজলুল হক এবং ব্যাংকের পরিচালক মানিক চন্দ্র দে, খন্দকার সাবেরা ইসলাম, মো: মোফাজ্জল হোসেন, মসিহ্ মালিক চৌধুরী এফসিএ, এ কে ফজলুল আহাদ, সেলিমা আহমাদ, মোহাম্মদ আবুল কাশেম, মো: আব্দুল হক, সিইও অ্যান্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো: আব্দুছ ছালাম আজাদ, ব্যাংকের ডিএমডি মো: ইসমাইল হোসেন, মোহাম্মদ ফখরুল আলম, মো: জিকরুল হক, মো: তাজুল ইসলাম ও কোম্পানী সচিব হোসেন ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী, জেনারেল ম্যানেজার অ্যান্ড সিএফও মো: নুরুল আলম এফসিএ, এফসিএমএসহ মহাব্যবস্থাপকরা উপস্থিত ছিলেন। ব্যাংকের চেয়ারম্যান লুনা সামসুদ্দোহা সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ২০১৭ সালে জনতা ব্যাংক ১,১৩৭ (এক হাজার একশত সাইত্রিশ ) কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা অর্জন করেছে। গত বছর ব্যাংকের কর পরবর্তী মুনাফার পরিমাণ দাঁড়ায় ২৬৯ (দুইশত ঊনসত্তর) কোটি টাকা। উল্লেখ্য, জনতা ব্যাংক অন্যান্য বছরের মতো এ বছরও কোনো ধরনের ফি বা চার্জ ছাড়াই সরকারের প্রায় ৯২টি সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীসহ অধিকাংশ আর্থসামাজিক কর্মকাণ্ডে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এসব সেবা প্রদানে ব্যাংকের কোনো আয় হয় না বরং উপকরণ ও জনশক্তি খাতে বিপুল খরচ হয়। সিইও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: আব্দুছ ছালাম আজাদ ব্যাংকের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে আর্থিক ফলাফলের বিস্তারিত বিবরণসহ ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা তুলে ধরেন। তিনি জানান, গ্রাহকদের রিয়েল টাইম অনলাইন ব্যাংকিং সেবা প্রদানের জন্য ইতোমধ্যে ব্যাংকের সব শাখা অনলাইনের আওতায় আনা হয়েছে। ২০১৭ সালে ব্যাংকের মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮০ হাজার ৫৯৯ কোটি টাকা, যা বিগত ২০১৬ সাল থেকে ৩.৫২% অর্থাৎ দুই হাজার ৭৩৯ কোটি টাকা বেশি। বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত ১০ম বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী নিশ্চিতকরণ, ২০১৭ সালের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং ২০১৮ সালের জন্য অডিটর নিয়োগ ও ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের পরিচালকদের অবসর গ্রহণ ও পুনর্নির্বাচন অনুমোদিত হয়। এ ছাড়া সভায় বিগত বছরগুলোর মতো এ বছরও জনতা ব্যাংক কর্তৃক সরকারকে এক কোটি টাকা নগদ লভ্যাংশ প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বিজ্ঞপ্তি।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.